রবিবার , ১৭ মার্চ ২০২৪ | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. আমাদের পরিবার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. দেশজুড়ে
  7. ধর্ম
  8. ফিচার
  9. বাণিজ্য
  10. বাংলাদেশ
  11. বিনোদন
  12. বিশ্ব
  13. ভিডিও
  14. মুন্সীগঞ্জ
  15. রাজনীতি

মালয়েশিয়া-ইন্দোনেশিয়ায় ইসরায়েলি খেজুর বয়কট

প্রতিবেদক
admin
মার্চ ১৭, ২০২৪ ১০:১৩ পূর্বাহ্ন

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বৃহৎ দুই মুসলিম দেশ মালয়েশিয়া-ইন্দোনেশিয়ায় ইসরায়েলি পণ্য বয়কটের তালিকায় এবার যুক্ত হয়েছে খেজুর।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মালয়েশিয়ার কাস্টমস স্থানীয় বাজারে ইসরায়েলি খেজুরের প্যাকেটের লেবেল পরিবর্তন করে বিক্রির অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে। অপরদিকে ইন্দোনেশিয়ার কর্তৃপক্ষ জনসাধারণকে ইসরায়েলি পণ্য আমদানি বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে।

ফিলিস্তিনের গাজায় নৃশংস ইসরায়েলি হামলার প্রতিবাদে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা ইসরায়েলি পণ্য ও কোম্পানি বয়কটের ঘোষণা দিয়েছে। গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া ভয়াবহ ইসরায়েলি হামলায় এ পর্যন্ত ৩০ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

বয়কটের ফলে ইসরায়েলের সঙ্গে সম্পর্ক রয়েছে এমন সব কোম্পানির পণ্য বিক্রি কমে গেছে মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ায়। সর্বশেষ এই বয়কটের তালিকায় যুক্ত হয়েছে ইসরায়েলি খেজুর। মালয়েশিয়া ও ইন্দোনেশিয়ার বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বলা হচ্ছে, ইসরায়েলি খেজুর মুসলিম দেশগুলোতে বেনামে বিক্রি হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার মালয়েশিয়ার সেলাঙ্গরের ক্লাং পোর্টে একটি গুদামে অভিযান চালিয়ে ইসরায়েলি খেজুরের প্যাকেটের লেবেল পরিবর্তন করে বিক্রির অভিযোগে একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। এরপর সতর্ক করে মালয়েশিয়ার একজন মন্ত্রী বলেন, ইসরায়েলি পণ্য বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর যারা ভোক্তাদের বিভ্রান্ত করে ইসরায়েলি পণ্য বিক্রি করে তাদের কোনো ছাড় নেই।

মালয়েশিয়ার মন্ত্রী আরমিজান মোহাম্মদ আলী বৃহস্পতিবার বলেন, অভিযানে মেডজুল খেজুরের ৭৩টি প্যাকেট বাজেয়াপ্ত করেছে। এসব খেজুর ইসরায়েল থেকে এসেছিল বলে অনুমান করা হচ্ছে। আমরা এই বিষয়টিকে গুরুত্ব সহকারে দেখি এবং যারা ভোক্তাদের বিভ্রান্ত করে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেব।

অন্যদিকে বিশ্বের বৃহত্তম মুসলিম জনগোষ্ঠীর দেশ ইন্দোনেশিয়ার ধর্মীয় কর্তৃপক্ষ ইসরায়েলি খেজুর আমদানি ও বিক্রি বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে। দেশটির সর্বোচ্চ ধর্মীয় সংস্থা ইন্দোনেশিয়ান কাউন্সিল অব ওলেমা (এমইউআই) এবং বৃহত্তম মুসলিম গণসংগঠন নাদহাতুল উলেমা ইসরায়েল থেকে আমদানি করা বা পশ্চিম তীরে জন্মানো খেজুর খাওয়ার বিরুদ্ধে পৃথক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে।

এমইউআই প্রধান সুদারনোটো গত বুধবার বলেছেন, আমরা ইন্দোনেশিয়ান মুসলিম বা অন্য ধর্ম সম্প্রদায় মানবতার পাশে থাকতে রমজানে ইসরায়েলি খেজুর কেনা থেকে বিরত থাকব। ইসরায়েলের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্পোরেশনগুলোর পণ্য বর্জনও একইসঙ্গে চালিয়ে যেতে হবে।

সর্বশেষ - দেশজুড়ে