রবিবার , ২৪ মার্চ ২০২৪ | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. আমাদের পরিবার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. দেশজুড়ে
  7. ধর্ম
  8. ফিচার
  9. বাণিজ্য
  10. বাংলাদেশ
  11. বিনোদন
  12. বিশ্ব
  13. ভিডিও
  14. মুন্সীগঞ্জ
  15. রাজনীতি

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটবেন যেভাবে

প্রতিবেদক
admin
মার্চ ২৪, ২০২৪ ৫:৪২ পূর্বাহ্ন

এবার ঈদযাত্রায় শতভাগ অনলাইনে ট্রেনের টিকিট পাবেন যাত্রীরা। ফলে রেল স্টেশনে গিয়ে আর ঘণ্টার পর ঘণ্টা টিকিটের জন্য অপেক্ষা করতে হবে না। ঈদযাত্রায় এবার ঢাকা থেকে বহির্গামী ট্রেনের আসন সংখ্যা হবে ৩৩ হাজার ৫০০টি।

বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকে সহজেই যাত্রীরা টিকিট সংগ্রহ করতে পারেন। সেক্ষেত্রে রেলওয়ের ওয়েবসাইটে একবার রেজিস্ট্রেশন করলেই চলবে। যারা আগে রেজিস্ট্রেশন করেছেন, তারা শুধু লগইন করেই টিকিট সংগ্রহ করতে পারবেন।

রেজিস্ট্রেশন প্রক্রিয়া

প্রথমে বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইটে (www.eticket.railway.gov.bd) প্রবেশ করতে হবে। প্রবেশের পর ওয়েবসাইটের ওপরের দিকে রেজিস্ট্রেশন (Registration) ট্যাব ক্লিক করতে হবে। এতে রেজিস্ট্রেশন নামে নতুন একটি পেজ আসবে। এ পেজে ব্যক্তিগত তথ্যাদি দিয়ে (Personal Information) সংশ্লিষ্ট ঘরগুলো পূরণ করতে হবে। মোবাইল নম্বরে একটি ওটিপি (OTP) চলে আসবে। সেটি সঠিকভাবে পূরণ করে ভেরিফাই (Verify) বাটনে ক্লিক করতে হবে। সব তথ্য ঠিক থাকলে রেজিস্ট্রেশন সফল (Successful) হবে এবং বাংলাদেশ রেলওয়ে নামে নতুন একটি পেজ আসবে। এখানে ইউজার (User) অটো লগইন (Log In) হয়ে যাবে।

টিকিট কেনার পদ্ধতি 

প্রথমে বাংলাদেশ রেলওয়ের ওয়েবসাইটে (www.eticket.railway.gov.bd) প্রবেশ করতে হবে। অটো লগ ইন (Log In) না হয়ে থাকলে প্যানেলে ই-মেইল ঠিকানা (E-mail address) ও পাসওয়ার্ড (Password) পূরণ করে লগ ইন (Log In) বাটনে ক্লিক করতে হবে। লগইনের পর যে পেজটি আসবে তাতে কাঙ্ক্ষিত ভ্রমণ তারিখ, প্রারম্ভিক স্টেশন, গন্তব্য স্টেশন, শ্রেণি পূরণ করে ফাইন্ড টিকিট (Find Ticket) বাটনে ক্লিক করতে হবে। পরের পেজে ট্রেনের নাম, সিট অ্যাভেলেবিলিটি (আসন আছে কি নেই) ও ট্রেন ছাড়ার সময় দেখাবে।

ট্রেন অনুযায়ী ভিউ সিটস (আসন দেখুন) বাটনে ক্লিক করে আসন খালি থাকার সাপেক্ষে পছন্দের আসন (seat) সিলেক্ট করে কন্টিনিউ পারচেজে  (Continue Purchase) ক্লিক করতে হবে। ভিসা (VISA) কার্ড, মাস্টার (MASTER) কার্ড কিংবা বিকাশে (bkash) পেমেন্ট করলে একটি ই-টিকিট অটো ডাউনলোড (Auto Download) হবে। পাশাপাশি যাত্রীর ই-মেইলে টিকিটের কপি চলে যাবে।

এরপর ই-মেইলের ইনবক্স থেকে টিকিটটি প্রিন্ট করে ফটো আইডিসহ ই-টিকেট প্রদত্ত টিকিট প্রিন্ট ইনফরমেশন (Ticket Print Information) দিয়ে সংশ্লিষ্ট সোর্স স্টেশন থেকে যাত্রার আগে ছাপানো টিকিট সংগ্রহ করা যাবে।

ঈদযাত্রার টিকিট

আজ ২৪ মার্চ বিক্রি হবে ৩ এপ্রিলের টিকেট। আগামীকাল ২৫ মার্চ পাওয়া যাবে ৪ এপ্রিলের টিকিট। পাশাপাশি ২৬ মার্চ মিলবে ৫ এপ্রিলের টিকিট। এরপর ২৭ মার্চ পাওয়া যাবে ৬ এপ্রিলের টিকিট। অন্যদিকে, ২৮ মার্চ বিক্রি হবে ৭ এপ্রিলের টিকিট। পাশাপাশি ২৯ মার্চ দেওয়া হবে ৮ এপ্রিলের টিকিট। এছাড়া ৩০ মার্চ ৯ এপ্রিলের টিকিট বিক্রি হবে।

ফিরতি টিকিট

ঈদ শেষে ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে আগামী ৩ এপ্রিল থেকে। ওইদিন পাওয়া যাবে ১৩ এপ্রিলের টিকিট। পাশাপাশি ৪ এপ্রিল বিক্রি হবে ১৪ এপ্রিলের টিকিট। পরদিন ৫ এপ্রিল মিলবে ১৫ এপ্রিলের টিকিট। এছাড়া ৬ এপ্রিল বিক্রি হবে ১৬ এপ্রিলের টিকিট। আর ৭ এপ্রিল দেয়া হবে ১৭ এপ্রিলের টিকিট। অন্যদিকে, ৮ এপ্রিল বিক্রি হবে ১৮ এপ্রিলের টিকিট এবং ৯ এপ্রিল পাওয়া যাবে ১৯ এপ্রিলের আগাম ট্রেনের টিকিট।

সর্বশেষ - দেশজুড়ে