মঙ্গলবার , ২১ মে ২০২৪ | ৩রা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. ! Без рубрики
  2. অন্যান্য
  3. অপরাধ
  4. আমাদের পরিবার
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. দেশজুড়ে
  8. ধর্ম
  9. ফিচার
  10. বাণিজ্য
  11. বাংলাদেশ
  12. বিনোদন
  13. বিশ্ব
  14. ভিডিও
  15. মুন্সীগঞ্জ

রূপগঞ্জ, আড়াইহাজার ও সোনারগাঁয়ে চলছে উপজেলা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ

প্রতিবেদক
admin
মে ২১, ২০২৪ ১২:২৬ অপরাহ্ণ

দীর্ঘ প্রচার-প্রচারণার পর নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ, আড়াইহাজার ও সোনারগাঁয়ে চলছে উপজেলা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ।

মঙ্গলবার (২১ মে) সকাল ৮টা থেকে তিন উপজেলার ৪২৩টি ভোটকেন্দ্রে শুরু হওয়া ভোটগ্রহণ চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। তবে প্রায় সবকটি কেন্দ্রেই ভোটার উপস্থিতি কম। সকাল ১০টায় এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তিন উপজেলার কোথাও কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

এদিকে, তিনটি উপজেলায় বেশকিছু কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করেছে জেলা পুলিশ। এসব কেন্দ্রগুলোতে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি ও র‍্যাবের টহলও থাকবে ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোতে।

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোর বেশিরভাগই সোনারগাঁ উপজেলার। এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সদস্য মাহফুজুর রহমান কালাম, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান বাবুল ওমর বাবু।

যদিও মূল লড়াইটা হচ্ছে মাহফুজুর রহমান কালাম ও বাবুল ওমর বাবুর মাঝে।

সোনারগাঁয় শুধু চেয়ারম্যান পদ নয়, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদেও হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে যাচ্ছে। ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়াই করছেন ৬ জন প্রার্থী। তারা হলেন, মাসুম চৌধুরী, আজিজুল ইসলাম মুকুল, ফয়েজ শিপন, মো. জাহাঙ্গীর, মাহবুব পারভেজ, জহিরুল ইসলাম খোকন।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন ৫ জন। তারা হলেন, মাহমুদা আক্তার ফেন্সী, শ্যামলী আক্তার, কোহিনুর ইসলাম রুমা, এড. নুরজাহান ও হেলেনা আক্তার।

মূলত, সোনারগাঁ উপজেলার বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে সহিংসতার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রগুলোর বেশিরভাগই সোনারগাঁ উপজেলার। এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম নান্নু, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সদস্য মাহফুজুর রহমান কালাম, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলী হায়দার ও বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান বাবুল ওমর বাবু।

যদিও মূল লড়াইটা হচ্ছে মাহফুজুর রহমান কালাম ও বাবুল ওমর বাবুর মাঝে।

সোনারগাঁয় শুধু চেয়ারম্যান পদ নয়, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদেও হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হতে যাচ্ছে। ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়াই করছেন ৬ জন প্রার্থী।

তারা হলেন, মাসুম চৌধুরী, আজিজুল ইসলাম মুকুল, ফয়েজ শিপন, মো. জাহাঙ্গীর, মাহবুব পারভেজ, জহিরুল ইসলাম খোকন। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দিতা করছেন ৫ জন।

তারা হলেন, মাহমুদা আক্তার ফেন্সী, শ্যামলী আক্তার, কোহিনুর ইসলাম রুমা, এড. নুরজাহান ও হেলেনা আক্তার।

মূলত, সোনারগাঁ উপজেলার বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে সহিংসতার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এছাড়া, রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য হাবিবুর রহমান (দোয়াত কলম প্রতীক) এবং রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা আবু হোসেন রানু (আনারস প্রতীক) নির্বাচন করছেন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ও রংধনু গ্রুপের পরিচালক মিজানুর রহমান এবং সংরক্ষিত নারী ভাইস চেয়ারম্যান পদে যুব মহিলা লীগ নেত্রী ফেরদৌসী আক্তার ওরফে রিয়া একক প্রার্থী হিসেবে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

অন্যদিকে, আড়াইহাজার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি শাহজালাল মিয়া, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সভাপতি কাজী সুজন ইকবাল এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ও কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম নির্বাচন করছেন।

এ উপজেলায় ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা রফিকুল ইসলাম এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে জেলা মহিলা লীগ নেত্রী শাহিদা মোশারফ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হচ্ছেন। ফলে এই দুই পদে ভোট গ্রহণের প্রয়োজন হবে না।

জানা গেছে, নির্বাচন উপলক্ষে আজ (১৯ মে) থেকে নারায়ণগঞ্জের তিন উপজেলায় নিয়োগ দেয়া হয়েছে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট। ১৯মে থেকে ২৩মে পর্যন্ত মোট ৫দিনের জন্য তাদের নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

নিয়োগপ্রপ্তরা হলেন- সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শাফিয়া শারমিন (রূপগঞ্জ), সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. কাউসার আলম (সোনারগাঁ), সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ শামছুর ইসলাম (আড়াইহাজার)।

প্রতি উপজেলায় একজন করে বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট ও ৩ জন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটও মাঠে থাকবেন। তারা আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সঙ্গে মুভ করবেন।

এক্ষেত্রে যেকোনো নির্বাচনী অপরাধ আমলে নিয়ে তারা শাস্তি প্রদান করতে পারবেন।

নির্বানের পরিবেশ সুষ্ঠু রাখতে জেলার তিন উপজেলায় ১৮০০ পুলিশ সদস্য, ১০ প্লাটুন বিজিবি, কেন্দ্র প্রতি ১২জন করে আনসার এবং র‌্যাবের তিনটি টিম ভোট কেন্দ্রগুলোতে কাজ করছেন।

এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হয়েছে সোনারগাঁয়ে।

বিষয়টি লাইভ নারায়ণগঞ্জকে নিশ্চিত করে এই নির্বা চনের রিটার্নিং কর্মকর্তা মোঃ সাকিব-আল-রাব্বি।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে:-

রূপগঞ্জ উপজেলায় মোট ভোটর সংখ্যা ৩ লাখ ৯০ হাজার ৬০৭ জন, যাতে পুরুষের সংখ্যা ২ লাখ ৫১ জন আর মহিলা সংখ্যা ১ লাখ ৯০ হাজার ৫৫৪ জন। নির্বাচনে, উপজেলার ২টি পৌরসভা ও ৭টি ইউনিয়নে ভোট প্রয়োগের জন্য ১৪২ টি ভোট কেন্দ্রে থাকবে ১ হাজার ১১ টি ভোট কক্ষ।

এই উপজেলায় নির্বাচনে ভোটগ্রহণের জন্য থাকবেন ১৪২ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ১০১১ জন সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও ২০২২ জন পোলিং অফিসার।

আড়াইহাজার উপজেলায় মোট ভোটর সংখ্যা ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৪৮৭ জন। যাতে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৭৫ হাজার ২২ জন ও মহিলা ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৬৪ হাজার ৪৬২ জন।

নির্বাচনে, উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১০টি ইউনিয়নে ভোট প্রয়োগের জন্য ১৩৯ টি ভোট কেন্দ্রে থাকবে ৯১৯ টি ভোট কক্ষ। এই উপজেলায় নির্বাচনে ভোটগ্রহণের জন্য থাকবেন ১৩৯ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ৯১৯ জন সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও ১৮৩৮ জন পোলিং অফিসার।

সোনারগা উপজেলায় মোট ভোটর সংখ্যা ৩ লাখ ৫০ হাজার ৬৬৮ জন। যাতে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৮১ হাজার ৪১৪ জন ও মহিলা ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ৬৯ হাজার ২৫৪ জন।

নির্বাচনে, উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ১০টি ইউনিয়নে ভোট প্রয়োগের জন্য ১৪২ টি ভোট কেন্দ্রে থাকবে ৯৬২ টি ভোট কক্ষ।

এই উপজেলায় নির্বাচনে ভোটগ্রহণের জন্য থাকবেন ১৪২ জন প্রিজাইডিং কর্মকর্তা, ৯৬২ জন সহকারী প্রিজাইডিং কর্মকর্তা ও ১৯২৪ জন পোলিং অফিসার।

সর্বশেষ - রাজনীতি