মঙ্গলবার , ৭ মে ২০২৪ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. ! Без рубрики
  2. অন্যান্য
  3. অপরাধ
  4. আমাদের পরিবার
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. দেশজুড়ে
  8. ধর্ম
  9. ফিচার
  10. বাণিজ্য
  11. বাংলাদেশ
  12. বিনোদন
  13. বিশ্ব
  14. ভিডিও
  15. মুন্সীগঞ্জ

ফতুল্লার,চাষাড়ায় দুর্ধর্ষ ডাকাতি!

প্রতিবেদক
admin
মে ৭, ২০২৪ ৮:০০ অপরাহ্ণ

ফতুল্লার চাষাড়া এলাকায়, এক আমেরিকা প্রবাসির বাসায় এ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এসময় বাসায় থাকা সেই প্রবাসির বাবা সহ কাজের মহিলাকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে হাত-পা বেঁধে নগদ টাকা ,স্বর্ণালঙ্কার ও চেকের মাধ্যেমে ১৫ লক্ষ টাকা লুট করে নেয়। পরে কাজের মহিলার চিৎকারে এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ডাকাত দলের ৩ সদস্যের মধ্যে দুই সদস্যকে আটক করা হলেও ১৫ লক্ষ টাকা সহ অপর ডাকাত পালিয়ে যায়।

সোমবার ৬ মে নারায়ণগঞ্জ ফতুল্লার চাষাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। পরে ফতুল্লা থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে তারা আটক করে তাদের থানায় নিয়ে যায়।

জানা যায়, সোমবার সকাল দশটায় ডাকাত দলের সদস্যরা এই বাড়ির আশে পাশে অবস্থান নেয় বাড়িতে প্রবেশ করার জন্য। পরে সকাল সাড়ে দশটায় এই বাসার কাজের মহিলা আসলে তার পিছু নিয়ে বাড়ির উপরে যায় এর পরে যখনই ভিতর থেকে দরজা খোলা হয় তখনই সাথে সাথে ডাকাত দলের সদস্যরা কাজের মহিলাকে ধাক্কা দিয়ে ভিতরে ঢুকে যায়।

পরে তারা কাজের মহিলাকে ভয় দেখিয়ে হাত-পা বেধে রান্না ঘরে আটকিয়ে রেখে প্রবাসির বাবা আবুল হোসেনকে (৮৬) পাশের রুমে নিয়ে গিয়ে বেধে রেখে বাসায় থাকা স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা নেওয়ার পরে তারা আবুল হোসেনের ব্যাংকের চেক বইয়ে ১৫ লক্ষ টাকা এমাউন্ট বসিয়ে তাকে ভয় ভিতি দেখিয়ে বলে,আমরা এই চেক নিয়ে ব্যাংকে যাচ্ছি ব্যাংক থেকে কল দিলে আপনি টাকা দিয়ে দিতে বলবেন। পরে তারা তাদের ৩ সদস্যের মধ্যে একজকে ব্যাংকে পাঠিয়ে টাকা তুলে আনে।

পরে তারা কাজের মহিলাকে বলে যে যদি জানে বাচতে চান তাহলে আমারা যা বলি তা শোনেন। কাজের মহিলাকে ৫০,০০০ টাকা দিয়ে বলেন যে, আমরা এখন বের হবো আপনিও আমাদের সাথে বের হবেন চুপ চাপ করে যাতে করে কেউ কিছু বুজতে না পারে। এরপরে তারা বের হতে গেলে কাজের মহিলা চিৎকার করে ডাকাত ,ডাকাত বলে ডাকতে শুরু করলে পরে বাসার সব লোকজন সহ এলাকাবাসী সবাই এসে তাৎক্ষনিক ডাকাত দলের দুই সদস্যকে আটক করতে সক্ষম হয় তবে সাথে থাকা আরও একজন ডাকাত ১৫ লক্ষ টাকা সহ কোশলে পালিয়ে যায়। আটক করা ডাকাত দলের দুই সদস্যের কাছ থেকে নগদ এক লক্ষ টাকা উদ্ধার করে ঘটনাস্থলে থাকা এলাকাবসী।

পরে ফতুল্লা থানা পুলিশ খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে এসে ডাকাত দলের দুই সদস্যকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এই ঘটনায় ফতুল্লা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুরে আজম মিয়া জানায়, আমরা ইতিমধ্যেয়ে ডাকাত দলের দুইজনকে আমরা আমাদের হেফাজতে নিয়েছি এবং জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার অভিযানে কাজ করছে পুলিশ। অচিরেই তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

সর্বশেষ - রাজনীতি