রবিবার , ৩১ মার্চ ২০২৪ | ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. অপরাধ
  3. আমাদের পরিবার
  4. খেলাধুলা
  5. জাতীয়
  6. দেশজুড়ে
  7. ধর্ম
  8. ফিচার
  9. বাণিজ্য
  10. বাংলাদেশ
  11. বিনোদন
  12. বিশ্ব
  13. ভিডিও
  14. মুন্সীগঞ্জ
  15. রাজনীতি

গাছে ঝুলছিল কৃষকের মরদেহ, স্বজনদের দাবি হত্যা

প্রতিবেদক
admin
মার্চ ৩১, ২০২৪ ১০:০৮ পূর্বাহ্ন
গাছে ঝুলছিল কৃষকের মরদেহ, স্বজনদের দাবি হত্যা

নেত্রকোনার দুর্গাপুরে আত্রাখালী নদীর পাড়ে গাছের ডালে ঝুলন্ত অবস্থায় এক আবদুর রহিম (৩০) নামে কৃষকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। স্বজনরা বলছেন, হত্যার পর তাকে গাছের ডালে ঝুলিয়ে রেখেছে দুর্বৃত্তরা।

রোববার (৩১ মার্চ) সকালে গ্রামের নদী পাড়ের গাছ থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

দুর্গাপুর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মোহাম্মদ আক্কাস আলী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আবদুর রহিম উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের চন্দ্রকোণা গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর ছেলে।

এলাকাবাসী ও পরিবারের সদস্যরা জানান, আবদুর রহিম শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে তার কৃষি জমিতে পানি দেওয়ার জন্য বাড়ি থেকে বের হন। এরপর রাতে আর বাড়ি ফেরেননি তিনি।

পরে রোববার সকালে রহিমকে খুঁজতে বের হন তার মা হালেমা খাতুন। খোঁজার পথে নদীর পাড়ের একটি গাছে ছেলে রহিমের ঝুলন্ত দেহ দেখে হালেমা খাতুন চিৎকার শুরু করেন। এ সময় তার ডাক চিৎকারে সেখানে আশপাশের লোকজন জড়ো হন সেখানে। পরে তারা  পুলিশকে খবর দেয়।

কৃষক আবদুর রহিমের চাচা আহমদ আলী বলেন, আমার ভাবি সকালে বাড়ি থেকে খুঁজতে বের হয়ে নদীর পাড় দিয়ে যাওয়ার সময় একটা গাছে রহিম ঝুলে আছে দেখতে পান। পরে আমরা ঘটনাস্থলে যাই। পুলিশ লাশ উদ্ধারের পর যা দেখেছি, তাতে আমাদের ধারণা রহিমকে হত্যার পার গাছে ঝুলিয়ে রেখেছে দুর্বৃত্তরা।

এএসপি মোহাম্মদ আক্কাস আলী জানান, লাশের সুরতহাল করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য নেত্রকোণা সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যার কথা বলছে। পুলিশ সব দিক মাথায় রেখে তদন্ত শুরু করেছে। থানায় আইনগত পদক্ষেপ হচ্ছে।

সর্বশেষ - দেশজুড়ে

আপনার জন্য নির্বাচিত