বুধবার , ১৭ এপ্রিল ২০২৪ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. ! Без рубрики
  2. অন্যান্য
  3. অপরাধ
  4. আমাদের পরিবার
  5. খেলাধুলা
  6. জাতীয়
  7. দেশজুড়ে
  8. ধর্ম
  9. ফিচার
  10. বাণিজ্য
  11. বাংলাদেশ
  12. বিনোদন
  13. বিশ্ব
  14. ভিডিও
  15. মুন্সীগঞ্জ

ইন্টারনেট পাওয়া যায় না ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে

প্রতিবেদক
admin
এপ্রিল ১৭, ২০২৪ ৮:০৫ অপরাহ্ণ

ঢাকার গুরুত্বপূর্ণ স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রে ইন্টারনেট পাওয়া যায় না বলে অভিযোগ করেছে গ্রাহক অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠন বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন।

সংগঠনটি বলছে, চিকিৎসা সেবায় যখন ইন্টারনেট ও প্রযুক্তি সেবায় অভাবনীয় সাফল্য এনে দিচ্ছে, সেই সময় ঢাকার অতি গুরুত্বপূর্ণ বিশেষ করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল, ওসমানী মেডিকেল, সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল, পঙ্গু হাসপাতাল, জাতীয় বিজ্ঞান ও চক্ষু হাসপাতাল, শিশু হাসপাতাল সমূহে ফোরজি বা চতুর্থ প্রজন্মের ইন্টারনেট সেবা পাওয়া যেন ভাগ্যের ব্যাপার।

গত এক সপ্তাহে একটি পর্যবেক্ষণ টিমের মাধ্যমে রাজধানীর বিভিন্ন জনগুরুত্বপূর্ণ হাসপাতালে টেলিযোগাযোগ ও ইন্টারনেট সেবা পর্যবেক্ষণ করে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন। বুধবার (১৭ এপ্রিল) গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য তুলে ধরে সংগঠনটি।

পর্যবেক্ষণের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরে সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ঢাকার জনগুরুত্বপূর্ণ এবং বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় যে কয়টি চিকিৎসা কেন্দ্র বা হাসপাতাল রয়েছে তা রাজধানীতেই আর এ সকল হাসপাতাল ভবনের ৮৫ ভাগ স্থানে পাওয়া যায় না ফোরজি ইন্টারনেট সেবা। টুজি সেবা পাওয়া গেলেও সেটিও মানসম্পন্ন নয়। অসুস্থ রোগীরা ও তাদের স্বজনরা পরিবার-পরিজনের সাথে যোগাযোগ করতে বেশ বিড়ম্বনার সম্মুখীন হচ্ছে।

তিনি বলেন, ডাক্তারদের চেম্বারে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবা থাকায় তাদের চেম্বারে তারা ইন্টারনেট সেবা পেলেও ডাক্তাররা যখন রাউন্ডে থাকেন তখন তারা ইন্টারনেট সেবার বাইরে থাকেন। দেশের স্বাস্থ্য খাতে যখন সরকার আধুনিক উন্নত চিকিৎসা সেবা পাওয়ার জন্য দ্রুতগতির ইন্টারনেট এবং প্রযুক্তি ব্যবহারের ওপর গুরুত্বারোপ করছেন সে সময় জনগুরুত্বপূর্ণ চিকিৎসা কেন্দ্রে ইন্টারনেট সেবা না থাকা অত্যন্ত দুঃখজনক।

যেখানে প্রতিদিন প্রায় ২০ হাজার রোগী রাজধানী বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছে তাদের সাথে পরিবার পরিজন আত্মীয়-স্বজন সবাই উৎকণ্ঠায় থাকেন। এছাড়াও অর্থ লেনদেনের জন্য মোবাইল ব্যাংকিং একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। তাই টেলিযোগাযোগ এবং ইন্টারনেট সেবা হাসপাতালগুলোর জন্য এবং গ্রাহকদের কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ একটি মাধ্যম। আর এই মাধ্যমটি যখন অকার্যকর থাকে তখন বর্তমান সময়ে গ্রাহকরা হতাশাগ্রস্ত হয়।

তিনি আরও বলেন, পর্যবেক্ষণকালে অনেক রোগীর আত্মীয়-স্বজন আমাদের কাছে এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য দ্রুততার সাথে আহ্বান জানান। একইভাবে হাসপাতালগুলোর চিকিৎসক নার্স এবং কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও দ্রুত কার্যকর পদক্ষেপ দেখতে চান। আমরা বিষয়টি জনগুরুত্বপূর্ণ বিধায় গণমাধ্যমের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি এবং মোবাইল অপারেটরসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে বিশেষ করে মেডিকেল কলেজ, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এবং কর্তৃপক্ষকে দ্রুততার সাথে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য সবিনয় অনুরোধ করছি।

সর্বশেষ - রাজনীতি