মঙ্গলবার, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ,
৫ই জমাদিউস সানি, ১৪৪২ হিজরি, সকাল ৮:২৯
শিরোনামঃ
alordhara24 logo সফল ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম রাজিবকে সম্মাননা alordhara24 logo ব্লাড গ্রুপের পক্ষ থেকে পথশিশুদের খাবার বিতরন alordhara24 logo সোনারগাঁয়ে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে বিএনপি নেতার তাফালিং alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে ধর্ষণের অভিযোগে রনি গ্রেফতার alordhara24 logo সাবেক সাংসদ কালাম ও তার স্ত্রীর জন্য মহানগর বিএনপির দোয়া কামনা alordhara24 logo “নারী_নির্যাতন_আইন, পুরুষ_নির্যাতনের_হাতিয়ার” alordhara24 logo গোগনগরে ড্রেন ও রাস্তার নির্মান কাজ উদ্বোধন alordhara24 logo ৫ ফেব্রুয়ারী নারায়ণগঞ্জ জেলা রিপোর্টার্স ইউনিটির নির্বাচন alordhara24 logo দেশে সর্বপ্রথম ময়লা থেকে বিদ্যুৎ উৎপন্ন হবে জালকুড়িতে : মেয়র আইভী alordhara24 logo বাংলাদেশের উন্নয়ন পরিদর্শনে আসছেন বেলজিয়ামের রাজা alordhara24 logo সরকারের মুখোশ খুলছে তাদের সীমাহীন দুর্নীতির কারণে : তৈমূর আলম alordhara24 logo ভোটারদের বাড়িতে যাচ্ছে রান্না করা পোলাও alordhara24 logo ছাড়পত্র পেল ‘প্রিয় কমলা’ alordhara24 logo ইসমাইল-শিরিন আবারও দ্রুততম মানব-মানবী alordhara24 logo দলে কোন্দল সৃষ্টিকারী নেতাদের খবর আছে! alordhara24 logo নারীকে দল বেঁধে ধর্ষণ alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে কানখা মসজিদ নির্মাণে উত্তেজনা, সংঘর্ষের আশঙ্কা alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে পুতুলের ভিতর থেকে ১৮ হাজার ইয়াবাসহ আটক ৭ alordhara24 logo রূপগঞ্জের তারাবোতে কিশোরী ধর্ষণ alordhara24 logo চাঁদাবাজের বিরুদ্ধে অভিযোগ করায় নিরাপত্তাহীনতায় ব্যবসায়ী পরিবার alordhara24 logo সারাদেশের সবচেয়ে বড় স্থাপনা হবে মুজিবনগর কমপ্লেক্স alordhara24 logo পাকিস্তানে রক্ত দান করলেন আরতুগ্রুলের অভিনেতা alordhara24 logo শ্বাসরুদ্ধকর সেমিফাইনাল ম্যাচ জয়ে ফাইনালে বার্সেলোনা alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে বিএনপি নেতা লিমনের বিরোদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ alordhara24 logo তারেক রহমান’র গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহারের দাবীতে  বিক্ষোভ মিছিল alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জের ইভটিজার, সন্ত্রাসীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন alordhara24 logo ১৩৭ সদস্য বিশিষ্ট মাআসাপ বাংলাদেশ এর কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে রাতের আধারে ব্যবসায়ী সমিতির অফিসে হামলা alordhara24 logo যাচাই-বাছাই বন্ধসহ ৭ দফা দাবিতে মুক্তিযোদ্ধাদের মিছিল সমাবেশ alordhara24 logo মনোনয়ন নিলেন নাঃগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সফল সভাপতি মোহসীন মিয়া alordhara24 logo করোনাকালে সাংবাদিকদের ভূমিকার জন্য আমি তাদের স্যালুট করি : সাংসদ শামীম ওসমান alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন alordhara24 logo না’গঞ্জে বিএনপি’র দুই গ্রুপের হাতাহাতি alordhara24 logo উন্নয়নের মডেল মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স : ডাঃ রাশেদা সুলতানা alordhara24 logo মোল্লাহাটে বিপুল পরিমাণ সরকারি ওষধু জব্দ alordhara24 logo উন্নয়নের মডেল মোল্লাহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স : ডাঃ রাশেদা সুলতানা alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জের ইপিজেডে ফের শ্রমিক অসন্তোষ; গাড়ি ভাংচুর, রাস্তায় আগুন, টিয়ার সেল নিক্ষেপ alordhara24 logo মোল্লাহাটে কেন্দ্রীয় আ’লীগ নেতা শেখ হাবিবকে সংবর্ধনা প্রদান alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে মুজিববর্ষ উপলক্ষে পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান alordhara24 logo ফতুল্লার মনিরুল’র বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও মারধরের অভিযোগ alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতির উপর হামলা, থানায় জিডি alordhara24 logo মহিলা পরিষদ নেত্রী আয়শা খানমের স্মরণে মোমবাতি প্রজ্বলন ও নিরবতা কর্মসূচি alordhara24 logo সোনারগাঁয়ে সিআইপি মামুন ভূঁইয়ার পিতা ফজলুর রহমানের কুলখানী অনুষ্ঠিত alordhara24 logo প্রজ্বলিত মোমবাতি হাতে নিয়ে পদযাত্রা করবে শিক্ষক-শিক্ষার্থী-অভিভাবকগণ alordhara24 logo প্রেসক্লাব মোল্লাহাটের মাসিক সভা ও দোয়া alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে দরিদ্রদের মাঝে কম্বল বিতরণ alordhara24 logo মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য আমার দরজা সবসময় খোলা : ডিসি alordhara24 logo বিএনপি আইনজীবীদের মন্তব্যে চাপা ক্ষোভ সাধারণ আইনজীবীদের মাঝে alordhara24 logo সোনারগাঁয়ে মদ খেয়ে মাতাল না হয়ে ০৩ জনের মৃত্যু alordhara24 logo সিদ্ধিরগঞ্জে মসজিদের ভিতরে সাধারণ সম্পাদককে মারধর
কিশোর অপরাধের নেপথ্যে সামাজিক ও পারিবারিক দূর্বলতাই মূল কারণ : মো. শফিকুল ইসলাম আরজু
কিশোর অপরাধের নেপথ্যে সামাজিক ও পারিবারিক দূর্বলতাই মূল কারণ : মো. শফিকুল ইসলাম আরজু

কিশোর অপরাধের নেপথ্যে সামাজিক ও পারিবারিক দূর্বলতাই মূল কারণ : মো. শফিকুল ইসলাম আরজু

আলোরধারা ডেস্ক : 

ইদানিং প্রায়সই শোনা যাচ্ছে কিশোর অপরাধের নানান ঘটনা। কি কারণে দিন দিন কিশোর গ্যাং তৈরি হচ্ছে আর কেনই বা সংঘবদ্ধ কিশোর’রা বিভিন্ন অপরাধ মূলক কাজে জড়িয়ে পড়ছে তা নিয়ে সমাজ বিজ্ঞানীরাও আজ চিন্তিত। কিশোররা আজ কেবল হাতাহাতিতেই সীমাবদ্ধ নয় তারা এখন পরিকল্পিত হত্যার সাথেও জড়িয়ে পড়ছে। অপরাধমূলক কাজে এদের উৎসাহিত করছে কারা আর কেনই বা অপরাধমূলক কাজ থেকে কিশোরদের ফেরানো যাচ্ছে না? কীভাবে কিশোররা পরিবার-সমাজ ও আইনের চোখ ফাঁকি দিয়ে দিন দিন ভয়ংকর রূপে আবির্ভূত হচ্ছে। এর জন্য দায়ী কে? সমাজ, পরিবার না কি আইনি দূর্বলতা। এই সব প্রশ্নই এখন ঘুরে ফিরে বেড়াচ্ছে মানুষের মুখে মুখে।

প্রতিটি পরিবারের স্বপ্ন থাকে সন্তানকে নিয়ে গর্ব করার, প্রত্যাশা থাকে সন্তানটি একদিন বংশের নাম উজ্জ্বল করবে। সামাজের অপরাপর অংশের মানুষের আঙ্খাক্ষা থাকে ছেলেটি সমাজের জন্য কাজ করে এলাকার সুনাম বয়ে আনবে। আর এ ধরণের প্রত্যাশা নিয়েই পরষ্পর সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেয়। কিন্তু বর্তমানে দেখা যাচ্ছে তার উল্টো। সন্তানের অপরাধের কারণে বহু পিতাকে মাথা নিচু করে চলতে হচ্ছে। আর তারকা চিহ্নিত কুখ্যাত অপরাধী হলে শুধু ঐ কিশোরের পিতা নয় গোটা গ্রামবাসীকেই মাথা নিচু করে চলতে হয়।

আমাদের সকলেরই উচিৎ কিশোর যুবকদেরকে খারাপ কাজ থেকে নিরুসাহিত করে ভাল কাজের দিকে ফিরিয়ে। তাদেরকে সঠিক পথে ফিরিয়ে আনার দ্বায়িত্ব একক ভাবে পরিবার কিংবা প্রশাসনের নয়, বরং আমরা নৈতিক দ্বয়িত্ব হিসাবে যদি প্রত্যেকেই এগিয়ে আসি তাহলেই ওদেরকে ভাল পথে ফিরিয়ে আনা সম্ভব।

আমাদের প্রত্যেকের উচিৎ সন্তানদের আচরণ ও গতি প্রকৃতির দিকে নজর দেয়া। সেই সাথে ওদের বন্ধু কারা তা চিহ্নিত করা। ওদের অর্থনৈতিক আয়ের উৎস কী? ওদের পিছনে কারা সাহস যোগাচ্ছে কারা ওদের নিয়ন্ত্রণ করছে?

সমাজ বিজ্ঞানীদের মতে লেখাপড়ার প্রতি নিরুসাহিত হওয়া, কাজে কর্মে অনীহা, সময় অসময়ে বাহিরে যাওয়া, এমন কী রাতে বাড়ি না ফেরা, বৈরী আচরণ, স্নেহ ও সম্মান সূচক আচরণ না করা, উগ্র মেজাজ এসবই বকে যাওয়া একজন কিশোর বা যুবকের লক্ষণ বলে ধরে নেয়া যায়। হয়তো এই দিকগুলো যদি আমরা পরখ করতে পারি তাহলেই অতি সহজে বুঝতে পারবো আমাদের সন্তান অপরাধের সাথে জড়িয়ে যাচ্ছে কিনা। আর এই প্রাথমিক কালেই যদি তড়িৎ ব্যবস্থা নেয়া যায় তবেই তাকে সেই অপরাধের পথ থেকে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে; নয়তো সারা জীবনই পস্তাতে হয়।

কখনো কখনো এমনও তথ্য পাওয়া যায় যে, সুবিধাবাদী কিছু কিছু নেতা নিজের প্রভাব বিস্তারের জন্য কিশোরদেরকে অপরাধ মূলক কাজে ব্যবহার করে থাকে। অধিক মুনাফা লোভী ঐসব অপরাধী ব্যাক্তি কিশোরদের দিয়ে বিভিন্ন ভাবে সুকৌশলে মাদক বিক্রির কাজে নিয়োজিত করছে। সেই সাথে তাদের দিয়ে চাঁদাবাজি, ছিনতাই, জবরদখলসহ হত্যার মতো ঘৃণীত অপরাধমূলক কাজও করিয়ে নিচ্ছে।

এতদিন রাস্তার মোড়ে, অলিতে-গলিতে কিংবা পরিত্যাক্ত কোন ভবনে তাদের বিচরণ লক্ষ্য করা গেলেও সম্প্রতি নবরূপে কিশোররা বেপরোয়া স্টাইলে মটর সাইকেল, গাড়ি কিংবা বাইসাইকেলে দশ থেকে ত্রিশ জনের মতো দল করে দিনে কিংবা রাতে উচ্চ হর্ণ বাজিয়ে চলাফেরা করে থাকে। তাদের মধ্যে অনেকেই অপ্রাপ্ত বয়স্ক এমন কী ড্রাইভিং লাইন্সহীন। ওরা কী ভাবে প্রশাসনের চোখের সামনে এমন বেপরোয়া ভাবে চলাচল করছে? কিশোরদের এ ধরণের সংঘবদ্ধ আড্ডা ও অপরাধ মূলক কাজের প্রতি নজর দেয়া গোয়েন্দা সংস্থার যেমন দায়িত্ব তেমনি সমাজের জনপ্রতিনিধিদেরও সামাজিক শান্তি শৃঙ্খলার জন্য বিশেষ ভূমিকা নেয়ার দরকার। কিন্তু বাস্তবে এ বিষয়ে তাদের রয়েছে বিস্তর উদাসীনতা। একজন অপরাধি আইনের ফাকফোকর দিয়ে কৌশলে জামিনে বেড়িয়ে এসে আবারও অপরাধের সাথে জড়িয়ে পড়ছে।

কিন্তু সেই অপরাধীর প্রতি যদি পুলিশ প্রশাসনের নজরদারি থাকতো। তাহলে সে হয়তো বেরিয়ে এলেও অপরাধের সাথে আর জড়িত হবার চিন্তাই করতো না। পারিবারিকভাবে যদি সন্তানের অপরাধ মূলক কাজে জড়িত হবার কথা শুনে প্রথমিক পর্যায়েই বাধা প্রয়োগ করতো তাহলে হয়তো কিশোর অপরাধের প্রবণতা সমাজ থেকে কমে যেত।

অভিজ্ঞ মহলের কেউ কেউ কিশোর অপরাধের সংখ্যা বৃদ্ধির মূল কারন বলে মনে করেন সামাজিক দূর্বলতাকে, তাদের মতে সমাজিক বিচার ব্যবস্থা আজ অপরাধীদের নিয়ন্ত্রণে চলে গেছে। আর তাই অপরাধীদের প্রতিরোধ করা থেকে অনেকে আজ
অপরাধীদের ভয়ে নিজেদের গুটিয়ে নিয়েছেন। সামাজিক ভাবে একজন অপরাধী হলেও আইনের চোখে সাক্ষী-প্রমাণ না দিতে পারায় অপরাধী ব্যাক্তিটি হয়ে উঠে শক্তিধর।

তাই আমাদের সমাজ ব্যবস্থা, রাষ্ট্রিয় আইন ও পারিবারিক নিয়ন্ত্রণ সময় উপযোগী করতে হবে। অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে। প্রতিবাদ করতে হবে।মানবিক দায়বদ্ধতা থেকেই সামাজিক অবক্ষয় দুর করতে হবে। সমাজ সুন্দর-সুশৃংখল হলে কোন সন্তান অপরাধী না হয়ে হবে সমাজ ও রাষ্ট্রের গর্বিত সন্তান।

Share This

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fifteen − 13 =

এ বিভাগের আরও খবর...।